কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১৯ মে ২০২৩, ০৮:১৭ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

অনিয়ম হলেও বাতিল হবে না পুরো ভোট

অনিয়ম হলেও বাতিল হবে না পুরো ভোট
নির্বাচনে অনিয়ম হলে গেজেট প্রকাশের পরও ফল বাতিলের ক্ষমতা চেয়ে গণপ্রতিনিধিত্ব আইনের সংশোধনীতে যে প্রস্তাব নির্বাচন কমিশন (ইসি) দিয়েছিল, তাতে সম্মতি দেয়নি মন্ত্রিসভা। ফলে অনিয়মের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হলেও পুরো ভোট বাতিলের ক্ষমতা পাচ্ছে না ইসি। তবে যেসব কেন্দ্রে অনিয়ম হবে, শুধু সেসব কেন্দ্রের ফল স্থগিত বা বাতিল করতে পারবে ইসি। এমন বিধান রেখে ‘গণপ্রতিনিধিত্ব (সংশোধন) আইন ২০২৩’-এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। আইনটি এখন পাসের জন্য সংসদে উঠবে। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠক শেষে বিকেলে সচিবালয়ে ফিরে প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, নির্বাচনের যে কোনো মুহূর্তে পেশিশক্তি বা অন্য যে কোনো কারণে এক বা একাধিক কেন্দ্রের ফলাফল স্থগিত বা বাতিল করার ক্ষমতা নির্বাচন কমিশনকে দেওয়া হয়েছে। পুরো নির্বাচন বাতিল করার কোনো প্রভিশন আইনে নেই। মাহবুব বলেন, আরপিও সংশোধনীতে গণমাধ্যমকর্মী ও পর্যবেক্ষকদের কাজে কেউ বাধা দিলে সর্বনিম্ন দুই বছর থেকে সর্বোচ্চ সাত বছর কারাদণ্ডের বিষয়টি বহাল থাকবে। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার আগের দিন পর্যন্ত ইউটিলিটি বিলের কপি জমা দেওয়ার সুযোগ রাখার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। আর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সঙ্গে টিআইএন সনদ এবং কত টাকা আয়কর জমা দেওয়া হয়েছে, তার রসিদ জমা দিতে হবে। রিটার্নিং কর্মকর্তা : প্রস্তাবিত সংশোধনীতে জাতীয় নির্বাচনে আসনভিত্তিক রিটার্নিং কর্মকর্তা রাখার বিষয়টি আগের মতো বহাল রয়েছে। বিদ্যমান আইনে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশন প্রতিটি নির্বাচনী এলাকা থেকে কোনো সদস্য নির্বাচনের উদ্দেশ্যে ওই এলাকার জন্য একজন রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ করবে। তবে কোনো ব্যক্তিকে দুই বা ততোধিক নির্বাচনী এলাকার জন্য রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ করা যাবে। এই বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তার বিষয়ে জেলাভিত্তিক রিটার্নিং কর্মকর্তা অথবা আসনভিত্তিক রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ করা যাবে। নারী প্রতিনিধিত্ব : আরপিওতে রাজনৈতিক দলের সর্বস্তরের কমিটিতে নারী প্রতিনিধিত্ব রাখতে ২০৩০ সাল পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়েছে। বর্তমান আইনে ২০২০ সালের মধ্যে নারী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিতের বিষয়ে বলা আছে। জানুয়ারি-মার্চে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন ৬৫ শতাংশ : চলতি বছর জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত মন্ত্রিসভায় নেওয়া সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের হার ৬৪ দশমিক ৮১ শতাংশ। মন্ত্রিসভা বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের বিষয়ে ২০২৩ সালের প্রথম ত্রৈমাসিক প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়। গতকাল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। আইনের খসড়া : নীতিগত অনুমোদনের পর পড়ে থাকা আইনের খসড়াগুলো দ্রুত মন্ত্রিসভার বৈঠকে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য উপস্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ নির্দেশ দেন তিনি।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

শিক্ষার্থীদের কর্মসূচি নেই, ক্যাম্পাস খোলার দাবি

বিএনপির মদদ ও জামায়াত-শিবিরের পরিকল্পনায় ধ্বংসংযজ্ঞ : প্রধানমন্ত্রী

পুলিশের তিন সদস্য নিহত, আহত ১১১৭ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাজারে নিত্যপণ্যের সংকট নেই : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

দূরপাল্লার বাস চলবে

নতুন ভাড়াটিয়াদের তথ্য দিতে অনুরোধ ডিএমপি কমিশনারের 

২৪ জুলাই : নামাজের সময়সূচি

সীমিত পরিসরে খোলা থাকবে ব্যাংক, লেনদেন ৪ ঘণ্টা

সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকলে সমস্যা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব : আহসান খান চৌধুরী

লন্ডন থেকে তারেক রহমানের নির্দেশে হামলা চালানো হয় : হারুন

১০

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সেনাপ্রধানের সাক্ষাৎ

১১

কারখানা চালু থাকলে শ্রমিকরা ভেতরে নিরাপদ থাকবে : বিকেএমইএ সভাপতি

১২

কোটা ইস্যু আরও আগেই সমাধান করা যেত : ইসলামী ছাত্র আন্দোলন

১৩

শিল্প-কলকারখানা খুলে দেওয়ার আহ্বান : নাসিম মঞ্জুর

১৪

কবে থেকে চলবে যাত্রীবাহী ট্রেন, জানা যাবে বুধবার

১৫

আইডি কার্ডই হবে পোশাকশ্রমিকদের কারফিউ পাস

১৬

এটি একটি অর্গানাইজড ক্রাইম : বিএবি চেয়ারম্যান

১৭

জাহাজ ভাঙা শিল্পে শীর্ষে যেতে পারে বাংলাদেশ : নরওয়ে রাষ্ট্রদূত

১৮

পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক হওয়ার অপেক্ষায় রাজধানীবাসী

১৯

শৈলকুপা উপজেলা আ.লীগ সভাপতিকে হত্যাচেষ্টা

২০
X