সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০
কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২০ মে ২০২৩, ০৮:০৭ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

সংখ্যালঘুদের অনুপাত কমছে কেন, কমিশন

দেশের জনসংখ্যায় ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অনুপাত কেন ধারাবাহিকভাবে কমছে, সে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে একটি কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ। গতকাল শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে বাংলাদেশ আইনজীবী ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রিবার্ষিক জাতীয় সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

দাবিটি তোলেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত। তিনি বলেন, ‘১৯৪৭ সালে এই পূর্ব বাংলায় সংখ্যালঘুর হার ছিল ২৯ দশমিক ৭ শতাংশ। ১৯৭০ সালে তা নেমে এলো ১৯ থেকে ২০ ভাগে। কিছুদিন আগে বিবিএসের রিপোর্ট দেখলাম, সেই ১৯ থেকে ২০ ভাগ জনগোষ্ঠী…সেই সংখ্যাটি কমে নেমে এসেছে ৯ দশমিক ১ ভাগে। তারা কেন হারিয়ে যাচ্ছে? কোনো সরকারকে তা নিরূপণ করেতে দেখিনি। কিন্তু কেন হারিয়ে গেছে, তা নিরূপণের জন্য সরকারের উচিত একটা কমিশন গঠন করা। এটা করা প্রয়োজন, বাংলাদেশ যাতে বাংলাদেশ হিসেবেই টিকে থাকতে পারে।’

প্রতিক্রিয়াশীল মহল বিভিন্ন সময় সংখ্যালঘুদের ‘টার্গেট’ করে জানিয়ে রানা দাশগুপ্ত বলেন, তার উদাহরণ আমরা বিভিন্ন সময় দেখে আসছি। আজ আমরা শান্তিতে নেই, স্বস্তিতে নেই। আমাদের সংবিধান এখনো সাম্প্রদায়িকতা মুক্ত হতে পারেনি। অনেক নেতা আমাদের বলেন, ‘আপনারা নিজেদের সংখ্যালঘু ভাবেন কেন?’ আমরা নিজেদের সংখ্যালঘু মনে করি না। আমরা ধর্মীয়ভাবে সংখ্যালঘু হতে পারি। কিন্তু রাষ্ট্রীয় সংখ্যালঘুতে পরিণত হওয়ার জন্য আমরা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করিনি। বঙ্গবন্ধুর করা ’৭২-এর সংবিধান সঠিক থাকলেও জিয়াউর রহমান ও এরশাদের ‘প্রেতাত্মা’ থেকে সংবিধান এখনো মুক্ত হতে পারেনি।

কাগজে-কলমে আইন থাকলেও বাস্তবে তার প্রয়োগ নেই অভিযোগ করে সরকারের বিরুদ্ধে ‘প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের’ অভিযোগ তুলে রানা দাশগুপ্ত বলেন, ‘সরকার তার নির্বাচনী ইশতেহারে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, ক্ষমতা গ্রহণের পর তা আর বাস্তবায়িত হয়নি।’

বাংলাদেশ আইনজীবী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুনীল রঞ্জন বিশ্বাস এই আয়োজনে সংগঠনের পক্ষ থেকে ১০টি দাবি তুলে ধরে বলেন, ‘আমরা সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইনের প্রণয়ন চাই। সংখ্যালঘু জাতীয় কমিশন চাই। সেই সঙ্গে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার রোধ করারও জোর দাবি জানাই।’ আসন্ন বাজেটে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জন্য আনুপাতিক হারে বরাদ্দ চেয়ে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান ফাউন্ডেশন গঠনেরও দাবি জানান। সমতল ও পাহাড়ি জাতিগোষ্ঠীর জন্য আলাদা ভূমি কমিশন গঠন, অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনের পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন, পার্বত্য শান্তি চুক্তির যথাযথ বাস্তবায়নের দাবিও তুলে ধরেন তিনি।

ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতন-নিপীড়নের ঘটনায় ‘বিচারহীনতার অপসংস্কৃতি’ চালু আছে মন্তব্য করে এই আইনজীবী বলেন, ‘সেখানে থেকে বেরিয়ে এসে প্রতিটি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। চাকরিতে ২০ শতাংশ সংরক্ষণ এবং সমঅধিকার ও সমমর্যাদা নিয়ে মানুষের মতো মানুষ হিসেবে বসবাসের নিশ্চয়তাও দিতে হবে।’

অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন, বাংলাদেশ আইনজীবী ঐক্য পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বিভাস চন্দ্র বিশ্বাস, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সাবেক সভাপতি নিম চন্দ্র ভৌমিক, বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের আহ্বায়ক ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. মোমতাজ উদ্দিন ফকির, সম্পাদক আব্দুন নুর দুলাল, আইনজীবী প্রশান্ত অ্যালবার্ট বাড়ৈ প্রমুখ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ঘুষ-দুর্নীতির আখড়া জাজিরার বড়কান্দি ইউনিয়ন ভূমি অফিস

মীন রাশিতে কাজে সফল হওয়ার দিন আজ

২৭ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

মঙ্গলবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

প্যারিসে ভাষা দিবস উপলক্ষে পঞ্চ কবির গানের সন্ধ্যা

বাবাকে কুপিয়ে জখম, ছেলে গ্রেপ্তার

আধিপত্য বিস্তারে দুই গ্রুপের ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ৩

পথ হারানো ৩১ দর্শনার্থীকে উদ্ধার করল পুলিশ

শিক্ষা সফরে মদপান, দুই শিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

১০

মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা!

১১

রাতের ঢাকায় নতুন মাদক

১২

বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

১৩

রংপুরকে উড়িয়ে ফাইনালে লিটনের কুমিল্লা

১৪

যুগান্তরের অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে

১৫

ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদ গ্রেপ্তার

১৬

যৌন হয়রানির অভিযোগে ভিকারুননিসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

১৭

করোনায় আক্রান্ত ডিবি প্রধান হারুন

১৮

‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণের প্রস্তাব বাতিল

১৯

বর্ণাঢ্য আয়োজনে চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নবীনবরণ

২০
X