এনায়েত শাওন
প্রকাশ : ২০ মে ২০২৩, ০৭:৩৩ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

দলে সদস্য কত জানা নেই আওয়ামী লীগের

দলে সদস্য কত জানা নেই আওয়ামী লীগের

ঘটা করে নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম শুরু হলেও এখন পর্যন্ত দলে প্রাথমিক ও পূর্ণাঙ্গ সদস্যের সংখ্যা কত, তা জানা নেই আওয়ামী লীগের। এসব কার্যক্রম শেষে পরবর্তী সম্মেলনের আগেই কেন্দ্রে এ-সংক্রান্ত তথ্য পাঠানোর কথা তৃণমূলের। তবে বারবার তাগাদা দেওয়া হলেও তা মানছে না শাখাগুলো। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, অধিকাংশ জেলা, উপজেলা, থানা ও ওয়ার্ডে ঠিক কতসংখ্যক নতুন সদস্য নিবন্ধিত হয়েছেন, আর কতসংখ্যক পুরোনোরা তাদের সদস্যপদ নবায়ন করেছেন, এর তালিকা দেয়নি সংশ্লিষ্ট শাখাগুলো। কার্যক্রম শেষে মুড়ি বই ফেরত দেওয়ার নিয়ম থাকলেও তা না দিয়ে বরং শাখাগুলো নতুন করে বই নিয়েছে দলের দপ্তর থেকে। এমনকি তথ্য দেওয়ার জন্য তাগাদা দিয়ে চিঠি পাঠিয়েও কোনো প্রতিকার পায়নি দল।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান কালবেলাকে বলেন, আমাদের প্রতিটি জেলা, উপজেলা, থানা এমনকি ওয়ার্ড পর্যায়েও কমিটি আছে। কোন শাখা কত সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন করছে, তা হিসাব করলেই বের করা সম্ভব। এটি অবশ্যই থাকা উচিত বলে মনে করেন দলের এই সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য।

জানা গেছে, দলের প্রত্যেক সম্মেলনের পর নতুন সদস্য সংগ্রহ ও পুরোনো সদস্যপদ নবায়নের কাজ শুরু হয়। দুই সম্মেলনের মধ্যবর্তী সময়ে এ কার্যক্রম চলে। পরবর্তী সম্মেলনের আগেই এসব তথ্য কেন্দ্রীয় দপ্তরে হালনাগাদের কথা সংশ্লিষ্ট শাখার। সবশেষ দলের ২২তম জাতীয় ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় ২০২২ সালের ২৪ ডিসেম্বর। এর আগেই ২১ ও ২২তম সম্মেলনের মধ্যবর্তী সময়ের নতুন সদস্য ও নবায়নের তথ্য দপ্তরে জমা দেওয়ার কথা ছিল। তবে কোনো শাখাই তা জমা দেয়নি। সেই জেরে ১৫ দিনের সময় দিয়ে গত ১৫ মার্চ এসব তথ্য চেয়ে সংশ্লিষ্ট শাখাগুলোতে কেন্দ্র থেকে চিঠি পাঠানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মার্চ মাসের মধ্যে ৭৮টি জেলা শাখার মধ্যে মাত্র তিনটি জেলা শাখা তথ্য জমা দেয়।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, দলের প্রাথমিক সদস্যসংখ্যা কত, সে-সংক্রান্ত তথ্য নেই। তবে আমাদের দলের ডাটাবেজ তৈরির কাজ চলছে। এর জন্য কেন্দ্র থেকে শুরু করে ওয়ার্ড পর্যায় পর্যন্ত দলের সব কমিটির নেতাদের তথ্য সংগ্রহের কাজ চলছে।

এই ৭৮ জেলা শাখার অধীনে সারা দেশে প্রায় ৬৫০ উপজেলা শাখা রয়েছে আওয়ামী লীগের। সর্বশেষ এপ্রিল ও চলতি মাস মিলে ১৫টি শাখা দপ্তরে সদস্যদের হালনাগাদ তথ্য জমা দিয়েছে। তবে ঠিক কী সংখ্যক সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন করে, তার তথ্য নেই বলে দপ্তর সূত্রে জানা গেছে।

দলের উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান বলেন, কিছু কিছু জেলার নতুন সদস্য সংগ্রহ ও নবায়নের হালনাগাদ তথ্য দপ্তরে জমা পড়েছে। বাকি জেলা শাখাগুলো শিগগিরই জমা দেবে।

২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সরকার গঠনের পর ২০১০ সালের ৩০ জানুয়ারি সদস্য সংগ্রহ ও নবায়নের কাজ শুরু করে আওয়ামী লীগ। দীর্ঘ সাত বছর বিরতি দিয়ে ২০১৭ সালের ২০ মে গণভবনে অনুষ্ঠিত বিশেষ বর্ধিত সভায় আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংগঠনের সদস্যপদ সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন। এরপর থেকে নিয়মিতই দলের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়নের কাজ করছে আওয়ামী লীগ। তবে ২১তম জাতীয় সম্মেলনের পর করোনার কারণে এই কার্যক্রম কিছুদিন বন্ধ থাকে। গত বছরের ২ এপ্রিল দেশব্যাপী সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হয়।

আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রের ৫ ধারা ও উপধারায় বলা রয়েছে, আওয়ামী লীগের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বিশ্বাস করে নির্ধারিত ফরমে দেওয়া ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষর করে ত্রিবার্ষিক ২০ টাকা চাঁদা দিয়ে ১৮ বছরের বেশি বয়সী বাংলাদেশি নারী ও পুরুষ সদস্য হতে পারবেন। যারা বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব বিরোধী নয়, নাগরিকত্ব পরিত্যাগকারী বা বাতিলকৃত ব্যক্তি নয়; অন্য কোনো রাজনৈতিক দলের সদস্য নয়; ধর্ম, বর্ণ, শ্রেণি বা পেশায় বৈষম্যে বিশ্বাস করে না; আওয়ামী লীগের নীতি ও আদর্শের পরিপন্থি কোনো সংগঠনের সদস্য নয়—এমন ব্যক্তিরা সদস্য হতে পারবেন। আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের নির্দেশ পালনে বাধ্য থাকা ও নিয়মিত চাঁদা পরিশোধের কথা বলা হয়েছে। আর সদস্যপদের মেয়াদ হবে তিন বছর। প্রাথমিক সদস্যপদ হবে এক বছরের জন্য, এরপর তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না থাকলে আপনা-আপনি পূর্ণাঙ্গ সদস্য হিসেবে বিবেচিত হবেন। কোনো কারণে চাঁদা দিতে ব্যর্থ হলে নির্ধারিত হারে চাঁদা প্রদান সাপেক্ষে নির্ধারিত ফরমে দস্তখত করে সদস্যপদ পুনরুজ্জীবিত করা যাবে। পূর্ণাঙ্গ সদস্য না হলে তিনি কোনো কমিটিতে স্থান পাবেন না।

এই নীতিমালার ভিত্তিতেই দলের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়নের কাজ হয়। কিন্তু কতসংখ্যক সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন করেছে, তার তথ্য দেওয়ার কোনো নীতিমালা এতে উল্লেখ নেই। আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সেলিম মাহমুদ বলেন, দলের প্রাথমিক সদস্য কত, তার তথ্য থাকা উচিত। এটি নিয়ে আমরা কাজ করব।

জানা গেছে, রংপুর বিভাগের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়নের কাজ শুরু হয়েছে। গত ২৯ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রাথমিক সদস্যপদ নবায়নের মধ্য দিয়ে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য এ বিভাগের প্রতিটি শাখা কেন্দ্র থেকে দুইশ পাতার বইও সংগ্রহ করেছে। গত সপ্তাহে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে শুরু হয়েছে সদস্য সংগ্রহ। ঠাকুরগাঁও ও নীলফামারী জেলার প্রতিটি থানায় এই কার্যক্রম চলছে। তবে কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট ও পঞ্চগড় পিছিয়ে আছে বলে জানিয়েছে দলীয় সূত্র।

এ বিষয়ে রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী বলেন, রংপুর বিভাগে সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম চলছে। একই সঙ্গে গত তিন বছরের সদস্য সংগ্রহ ও নবায়নের হালনাগাদ তথ্য জানাতে সব শাখাকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে অন্য কোনো বিভাগে নতুন করে সদস্য সংগ্রহের কাজ শুরু না হলেও কার্যক্রম চলমান আছে বলে দাবি করছেন সাংগঠনিক সম্পাদকরা। গাজীপুর, বরিশাল, রাজশাহী, খুলনা ও সিলেট সিটি করপোরেশনের নির্বাচন নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতারা ব্যস্ত থাকায় সেখানে সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হয়নি। তবে ময়মনসিংহ ও ঢাকা বিভাগে শিগগিরই তা শুরু হবে বলে জানা গেছে।

ময়মনসিংহ বিভাগে নতুন সদস্য সংগ্রহ নবায়নের কাজ শুরু হবে এ মাসেই। গৌরীপুরে ২৭ মে ও বারহাট্টায় ২৮ মে সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন শুরু হবে। আগের নতুন সদস্য ও নবায়নের কোনো কাজ দেওয়া হয়নি এ বিভাগ থেকেও। ময়মনসিংহ বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল বলেন, খুব শিগগিরই সদস্য সংগ্রহ ও নবায়নের কাজ শুরু হবে।

এ বিষয়ে খুলনা বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক বলেন, হালনাগাদ তথ্য এই মুহূর্তে জানা নেই, তবে কার্যক্রম চলছে। আর চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, সব জেলায় সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রম চলছে। আশা করছি জুনের মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নতুন সদস্য সংগ্রহ হবে।

রাজশাহী বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন বলেন, এখন নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত সময় যাচ্ছে, তবে জেলা ইউনিটগুলো তাদের মতো কার্যক্রম চালাচ্ছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

শ্রীমঙ্গলে ঈদের ছুটিতেও দর্শনীয় স্থানগুলো প্রায় ফাঁকা

চাঁদপুরে নদী ভাঙ্গনে দিশেহারা জালিয়ার চরবাসী

রেললাইনে পানি ওঠায় ট্রেনের গতি কমানোর নির্দেশ

ধর্ষণ মামলায় রায়হান গ্রেপ্তার

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে হারিয়ে শেষ ষোলোতে স্পেন

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের দুই প্রকৌশলীর আর্থিক লেনদেনের ভিডিও ভাইরাল

কামাল লোহানীর পঞ্চম প্রয়াণ দিবসে উদীচীর স্মরণ সভা

রাসেলস ভাইপার মারলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

নারী নির্যাতন মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে

১০

ডেনমার্কের বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের হতাশার ড্র

১১

বাংলাদেশের সব অর্জন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

১২

আফগানদের হারিয়ে সুপার এইটে শুভ সূচনা ভারতের

১৩

চুরি করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতা ধরা

১৪

মজুদদারদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে : খাদ্যমন্ত্রী

১৫

ডিমলায় বুড়ি তিস্তা নদীর বাঁধে ভাঙন, পানিবন্দি ২ শতাধিক পরিবার

১৬

রাসেল ভাইপার নিয়ে ফেসবুকে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল, জনমনে আতঙ্ক

১৭

ঈদের ছুটিতে ছিলেন অফিসে, মিলল লাশ

১৮

ল্যাবএইডে দিনে ৭০টির বেশি এন্ডোসকপি, অস্বাভাবিক বলছেন বিশেষজ্ঞরা

১৯

প্রকাশ্যে মদ খেয়ে মাতলামি, জেলে গেলেন যুবক

২০
X