মো. আকিমুন হাসান রাফি
প্রকাশ : ২১ মে ২০২৩, ১০:৩৮ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

প্রথম ব্যাচের প্রথম ক্লাস

প্রথম ব্যাচের প্রথম ক্লাস
দুটি বহুতল ভবন নিয়ে একটি অস্থায়ী ক্যাম্পাস হিসেবে যাত্রা শুরু করেছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। ফটক দিয়ে ঢোকার পর ছোট তবে গোছানো ক্যাম্পাস চোখে পড়বে। ভবন দুটির পাশে ফাঁকা জায়গায় কিছু শিক্ষার্থীকে বসে আড্ডা দিতে দেখা যায়। আর এটাকেই বলা যায় এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম আড্ডা। প্রাণিবিজ্ঞান অনুষদের মো. জাহিদুর ইসলাম জাহিদ বলেন, ‘হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় নতুন হওয়ায় ভর্তির সময় পরিচিত অনেকে আপত্তি তুলেছিলেন। আমিও একটু ভয় পাচ্ছিলাম। তবে একটি বিশ্ববিদ্যালয় তো আর একদিনে তৈরি হয় না। অনেক অনেক ব্যাচ বের হয় একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। তবে আর যাই হোক, প্রথম ব্যাচের ছাত্র হতে পারাটা গর্বের। এ চিন্তা থেকেই ভর্তি হই। সেই হিসেবে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম হবে কি হবে না সেটা তো আমাদের ওপরই নির্ভর করছে। আমি তো বলব, আমাদের নাম খুব তাড়াতাড়ি দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও জানবে।’ পাশ থেকে কৃষি অনুষদের শেখ সোনিয়া মির্জা বললেন, ‘নতুন বিশ্ববিদ্যালয় হলেও আমরা কিন্তু নিজেদের স্মার্ট ক্যাম্পাস হিসেবে দাবি করতে পারি। কারণ আমাদের ক্লাস হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড এলিইডি স্মার্ট বোর্ডে। অস্থায়ী ক্যাম্পাস হলেও এটি বেশ পরিপাটি। আশা করছি কিছুদিনের মধ্যেই স্থায়ী ক্যাম্পাসের কাজ শুরু হবে। ওটার কাজ শেষ হলে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের অন্যতম নান্দনিক একটি ক্যাম্পাস হবে বলে আমার বিশ্বাস।’ মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের মো. সাখাওয়াত হোসেন সিজান বলে, ‘নতুন ক্যাম্পাস হিসেবে আমরা তো আর সব আশা করতে পারি না। বিশেষ করে আবাসন ব্যবস্থা, যাতায়াত সুবিধাসহ বা ল্যাব ঠিকঠাক না-ও থাকতে পারে। তবে যতটুকু পেয়েছি একটা নতুন ক্যাম্পাস হিসেবে তা যথেষ্ট। আমাদের কম্পিউটার ল্যাব বেশ উন্নতমানের। শিক্ষকদের কথা বললে বলতেই হবে তারা কতটা আন্তরিক। আমরা সদ্য কলেজ পাস করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছি। আগে ধারণা ছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা মনে হয় কাটখোট্টা ও গম্ভীর হবেন। এসে দেখছি তার উল্টো। তারা বেশ আন্তরিক। আমাদের ভিসি স্যারও আমাদের ব্যাপারে খুব হেল্পফুল। স্যারের সঙ্গে যতবারই কথা হয়েছে, আন্তরিকতার সঙ্গে আমাদের কথা শুনেছেন এবং সমাধানের ব্যবস্থা করেছেন।’ মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের আরেক শিক্ষার্থী উম্মে নূরজান নিশো বলেন, ‘একদম নতুন একটি এলাকায় বিশ্ববিদ্যালয়টি গড়ে ওঠায় কিছু প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে বটে। তবে আমাদের একাডেমিক বিষয়ের বাইরের সমস্যার জন্যও আমরা শিক্ষকদের শরণাপন্ন হতে পারছি। তারা সব আন্তরিকতার সঙ্গে সমাধান করছেন। তবে এই ফাঁকে ভিসি স্যারের কাছে আমরা শিগগিরই একটি ক্যান্টিন স্থাপনের দাবি জানাচ্ছি।’ একঝাঁক তরুণ শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে যাই। উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবদুল বাসেত বলেন, ‘আমাদের অনেক সীমাবদ্ধতা থাকলেও শিক্ষার্থীদের জন্য বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার চেষ্টা করছি। এরই মধ্যে অস্থায়ী ভিত্তিতে দুটি ভবনে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট তৈরি করেছি। শিক্ষার্থীদের জন্য অ্যাপ তৈরি করেছি। যে অ্যাপে শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা সব কাজ পেপারলেস করতে পারবেন। সেমিস্টার ফি পরিশোধ, ফরম পূরণসহ একাডেমিক সব কাজ অ্যাপে করা যাবে। ইন্টারেকটিভ ডিসপ্লে স্থাপনের মাধ্যমে স্মার্ট শ্রেণিকক্ষ তৈরি করেছি যা বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্য অন্যতম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের উদ্দেশ্যে এরই মধ্যে হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউট অব প্রিসিশন এগ্রিকালচার স্থাপনের অনুমোদন হয়েছে।’

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

বিএনপির মদদ ও জামায়াত-শিবিরের পরিকল্পনায় ধ্বংসংযজ্ঞ : প্রধানমন্ত্রী

পুলিশের তিন সদস্য নিহত, আহত ১১১৭ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাজারে নিত্যপণ্যের সংকট নেই : বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

দূরপাল্লার বাস চলবে

নতুন ভাড়াটিয়াদের তথ্য দিতে অনুরোধ ডিএমপি কমিশনারের 

২৪ জুলাই : নামাজের সময়সূচি

সীমিত পরিসরে খোলা থাকবে ব্যাংক, লেনদেন ৪ ঘণ্টা

সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকলে সমস্যা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব : আহসান খান চৌধুরী

লন্ডন থেকে তারেক রহমানের নির্দেশে হামলা চালানো হয় : হারুন

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সেনাপ্রধানের সাক্ষাৎ

১০

কারখানা চালু থাকলে শ্রমিকরা ভেতরে নিরাপদ থাকবে : বিকেএমইএ সভাপতি

১১

কোটা ইস্যু আরও আগেই সমাধান করা যেত : ইসলামী ছাত্র আন্দোলন

১২

শিল্প-কলকারখানা খুলে দেওয়ার আহ্বান : নাসিম মঞ্জুর

১৩

কবে থেকে চলবে যাত্রীবাহী ট্রেন, জানা যাবে বুধবার

১৪

আইডি কার্ডই হবে পোশাকশ্রমিকদের কারফিউ পাস

১৫

এটি একটি অর্গানাইজড ক্রাইম : বিএবি চেয়ারম্যান

১৬

জাহাজ ভাঙা শিল্পে শীর্ষে যেতে পারে বাংলাদেশ : নরওয়ে রাষ্ট্রদূত

১৭

পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক হওয়ার অপেক্ষায় রাজধানীবাসী

১৮

শৈলকুপা উপজেলা আ.লীগ সভাপতিকে হত্যাচেষ্টা

১৯

ছাত্রদের দাবির যৌক্তিকতা প্রমাণিত হলো : রুহিন হোসেন প্রিন্স

২০
X