কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০২৩, ১০:১১ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

ফের নীলনকশার নির্বাচন করতে চায় সরকার

ফের নীলনকশার নির্বাচন করতে চায় সরকার

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান সরকারের ২০৪১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকার খায়েশ জেগেছে। সেই নীলনকশা নিয়েই তারা ২০১৪ ও ২০১৮ সালের মতো একই কায়দায় আগামীতেও নির্বাচন করতে চায়। কিন্তু মানুষ এবার তা হতে দেবে না। উত্তাল তরঙ্গ সৃষ্টি করে জনগণ এদের পরাজিত করবে। বিএনপি এই সরকার ও নির্বাচন কমিশনের অধীনে কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না বলে জানান তিনি। গতকাল শনিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

বর্তমান সরকারের পদত্যাগসহ ১০ দফা দাবিতে সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত দেশব্যাপী জেলা ও মহানগরে একযোগে মানববন্ধন করে বিএনপিসহ সরকারবিরোধী বিভিন্ন দল ও জোট। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভার কারণে ময়মনসিংহ মহানগর এবং উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপি মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেনি। রাজধানীতে মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে যাত্রাবাড়ী থেকে আবদুল্লাহপুর (টঙ্গী ব্রিজ) পর্যন্ত ২৪ কিলোমিটার সড়কে মানববন্ধন হয়। মহানগর উত্তর বিএনপি আবদুল্লাহপুর (টঙ্গী ব্রিজ) থেকে মালিবাগ রেলগেট এবং দক্ষিণ বিএনপি মালিবাগ রেলগেট থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত মানববন্ধন করে।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার পরিকল্পিতভাবে এ দেশের সব প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করেছে। সংবিধানকে ধ্বংস করে দিয়েছে। ১৯৭২ সালে যে সংবিধান হয়েছিল, পরবর্তী সময়ে সংবিধানে জনগণের প্রয়োজনে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের যে ব্যবস্থা যুক্ত করা হয়েছিল, তাকে ভেঙেচুরে তারা এখন একদলীয় শাসনব্যবস্থা করার লক্ষ্যে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেছে।

তিনি বলেন, আমরা আন্দোলন শুরু করেছি। এই আন্দোলনে আমরা ১০ দফা দিয়েছি। সেখানে আমরা পরিষ্কার বলেছি–সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, সংসদ বিলুপ্ত করতে হবে। একটা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মাধ্যমে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করে নির্বাচন করতে হবে। আমরা কোনো সংঘর্ষে যেতে চাই না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আমরা যে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছি আপনারা সেটা মেনে নেন, ১০ দফা মেনে নেন। অবিলম্বে পদত্যাগ করুন, সংসদ ভেঙে দিন এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করুন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ঢাকা মহানগরে উত্তরা থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত মানুষ দাঁড়িয়ে গেছে। সব জেলায় মানুষ দাঁড়িয়ে গেছে। এভাবে সমাবেশের পর সমাবেশ, মানববন্ধনের মতো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আমরা জনগণকে সম্পৃক্ত করছি। এই আন্দোলন দিনে দিনে বাড়তে থাকবে, তীব্র থেকে তীব্রতর হবে, বেগবান হবে। নির্বাচনকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থার দাবিতে আওয়ামী লীগ ১৭৩ দিন অগ্নিসন্ত্রাস করেছে–উল্লেখ করে ক্ষমতাসীনদের অবিলম্বে পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি মেনে নেওয়ার আহ্বান জানান।

বিএনপিসহ এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে মানববন্ধনে অংশ নেন। মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আবদুস সালামের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম মজনুর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিএনপির মির্জা আব্বাস, খায়রুল কবির খোকন, আবদুস সালাম আজাদ, রকিবুল ইসলাম বকুল, যুবদলের সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, ছাত্রদলের সাইফ মাহমুদ জুয়েল বক্তব্য দেন।

এদিকে উত্তর বাড্ডার সুবাস্তু নজরভ্যালি মার্কেটের সামনে মহানগর উত্তর বিএনপির মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, বিএনপির আন্দোলনে সরকার ভীত। তাই আমাদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলন বাধাগ্রস্ত করতে শান্তি সমাবেশের নামে দেশে নৈরাজ্য পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চায়। সরকার যতই টালবাহানা করুক না কেন, সরকারের পদত্যাগ ছাড়া আগামী নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না। মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব আমিনুল হকের সঞ্চালনায় কর্মসূচিতে বিএনপির ব্যারিস্টার শাহাজাহান ওমরসহ উত্তর বিএনপির নেতারা বক্তব্য দেন।

এ ছাড়া যাত্রাবাড়ী ক্রীড়াচক্রের সামনে মানববন্ধনে বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, খিলক্ষেত বাসস্ট্যান্ডে দলের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন নসু, কুড়িল বিশ্বরোডে তুরাগ থানার কর্মসূচিতে সহ-প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খান, আদাবরে মানববন্ধনে স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম প্রধান অতিথি ছিলেন। এদিকে বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচির প্রতি সমর্থন জানিয়ে দুপুরে মতিঝিলের নটর ডেম কলেজের সামনে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ (বিএসপিপি)। এতে পরিষদের সদস্য সচিব কাদের গনি চৌধুরী, ঢাবি শিক্ষক সমিতির সহসভাপতি অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান, ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ, মহাসচিব ডা. আব্দুস সালাম, অ্যাব সভাপতি কৃষিবিদ রাশিদুল হাসান হারুন, সাংস্কৃতিক জোটের মহাসচিব রফিকুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচন হবে না–গয়েশ্বর : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, সরকার যতই টালবাহানা করুক–শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না। চলমান আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই সরকারের পতন ঘটানো হবে। দেশের মানুষের এখন একটাই দাবি–এই সরকারের পদত্যাগ। গতকাল বিকেলে ঢাকা জেলা বিএনপির উদ্যোগে ধামরাই পৌরসভার বিজয়নগর এলাকায় অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে এ কথা বলেন তিনি। ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নিপুণ রায় চৌধুরীর পরিচালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা বেনজীর আহমেদ টিটু, ঢাকা জেলার সভাপতি খন্দকার আবু আশফাক প্রমুখ।

ভোট চুরিতে জড়িতদের তালিকা হচ্ছে–খসরু : চট্টগ্রামে পৃথকভাবে মানববন্ধন করেছে মহানগর এবং উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি। সকাল ১১টায় নগর বিএনপি কাজীর দেউড়ি নূর আহমদ সড়কে, উত্তর জেলা জমিয়তুল ফালাহ মসজিদ গেট চত্বরে এবং শাহ আমানত সেতু গোলচত্বরে কর্মসূচি পালন করে দক্ষিণ জেলা। যারা ভোট চুরিতে জড়িত তাদের তালিকা করা হচ্ছে বলে জানান বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। মহানগরের কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষ না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে। আর এক শতাংশের নিচের মানুষ হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে। দক্ষিণের কর্মসূচিতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, ‘বর্তমান সরকারের অধীনে বিএনপি কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। দেশে আর কোনো পাতানো নির্বাচন হবে না। দমন-পীড়ন যত বাড়বে, আন্দোলন ততই বেগবান হবে।’ উত্তরের কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন।

সরকারের ব্যর্থতায় বিভিন্ন ভবনে বিস্ফোরণ–দুদু : সরকারের ব্যর্থতার কারণে দেশের বিভিন্ন ভবনে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। গতকাল ঝিনাইদহে জেলা বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে এ কথা বলেন তিনি। শহরের এইচএসএস সড়কের দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট এমএ মজিদ, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুজ্জামান মনা প্রমুখ নেতৃবৃন্দ বক্তব্য দেন।

খুলনাকে শ্মশানে পরিণত করেছে সরকার–নিতাই রায় : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী বলেছেন, খুলনার শিল্পাঞ্চলকে আওয়ামী লীগ সরকার শ্মশানে পরিণত করেছে। এই লুটেরা সরকারের বিরুদ্ধে শ্রমজীবী মেহনতি মানুষ বিএনপি ঘোষিত কর্মসূচির সমর্থনে রাজপথে নেমে এসেছে। এই সরকারের পতন হবে মানুষের গণজোয়ারেই। গতকাল খুলনা মহানগরীর কেডিঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয় চত্বরে অনুষ্ঠিত মহানগর বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। খুলনা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক শফিকুল আলম মনার সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বিএনপির কেন্দ্রীয় তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারি হেলাল, জেলার আহ্বায়ক আমির এজাজ খান, মহানগর সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন, জেলা সদস্য সচিব মনিরুল হাসান বাপ্পী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

নিপীড়ন করে আন্দোলন দমানো যাবে না–ডা. জাহিদ : মামলা-হামলা, নির্যাতন-নিপীড়ন করে বিএনপির জনসম্পৃক্ত আন্দোলন দমানো যাবে না বলে দাবি করেছেন দলটির ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. জাহিদ হোসেন। সকালে গাজীপুরে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ দাবি করেন তিনি। জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শাহ রিয়াজুল হান্নানের সঞ্চালনায় এতে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা হুমায়ুন কবীর খান, অধ্যাপক ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

সরকারের পতন সন্নিকটে–মিনু : বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু বলেছেন, বর্তমান সরকার গণতন্ত্র হরণকারী। তাদের ‍বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনে জনগণ ইতোমধ্যে সম্পৃক্ত হয়েছে। সুতরাং খুব শিগগির এ সরকারের পতন ঘটবে। সকালে বগুড়া শহরের নওয়াববাড়ি সড়কে জেলা বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। জেলা বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম বাদশার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আলী আজগর হেনার সঞ্চালনায় এতে বগুড়া জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও বগুড়া-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মোশারফ হোসেন বক্তব্য দেন।

সরকারের পতন নিশ্চিত–আলাল : বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, আওয়ামী লীগের সময় শেষ হয়ে গেছে। তাদের পতন সুনিশ্চিত। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশের অস্তিত্ব হুমকির মুখে পড়বে। গতকাল সিলেটে জেলা বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। দক্ষিণ সুরমা রেলগেট পয়েন্টে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী। জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তাহসিনা রুশদীর লুনাসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বরিশালে ৩ কিমি দীর্ঘ মানববন্ধন বিএনপির : কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বরিশালে ৩ কিলোমিটার দীর্ঘ মানববন্ধন করেছে বিএনপি। সকাল ১১টায় নগরীর হাসপাতাল রোডে জেলা বিএনপি এবং সদর রোডের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা এই মানববন্ধন করেন। বরিশাল মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান ফারুকের সভাপতিত্বে মহানগরের মানববন্ধনে প্রধান অতিথি ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান, প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু প্রমুখ। অন্যদিকে উত্তর ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির মানববন্ধনে প্রধান অতিথি ছিলেন দলের যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান সরোয়ার।

নতুন কর্মসূচি : সরকারবিরোধী যুগপৎ আন্দোলনের অংশ হিসেবে ১০ দফা দাবি বাস্তবায়ন এবং আওয়ামী সরকারের সর্বগ্রাসী দুর্নীতির প্রতিবাদে আগামী ১৮ মার্চ সারা দেশের মহানগরে সমাবেশ করবে বিএনপি। জেলা ও মহানগরের মানববন্ধন থেকে দলের নেতারা এই নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন। এটি হবে চলমান যুগপৎ আন্দোনের একাদশ কর্মসূচি।

বিএনপির নিন্দা : দেশব্যাপী জেলা ও মহানগরে মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে বিভিন্ন স্থানে নেতাকর্মীদের ওপর সরকারি দলের হামলা, গাড়ি ভাঙচুর ও গ্রেপ্তারের ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করেছে বিএনপি। গতকাল রাতে এক বিবৃতিতে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, মৌলভীবাজারে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নেতৃত্বে শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন কর্মসূচিতে ছাত্রলীগ-যুবলীগ পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য এম নাসের রহমান, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকীদুর রহমান সোহানসহ অনেককে গুরুতর আহত করেছে, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদকের গাড়ি ভাঙচুর করেছে। এ ছাড়া নেত্রকোনা জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল কাদের সুজাকে শুক্রবার রাতে শহরস্থ কুরপাড়ের নিজ বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি এসব ঘটনার নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

রেললাইনে পানি ওঠায় ট্রেনের গতি কমানোর নির্দেশ

ধর্ষণ মামলায় রায়হান গ্রেপ্তার

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে হারিয়ে শেষ ষোলোতে স্পেন

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের দুই প্রকৌশলীর আর্থিক লেনদেনের ভিডিও ভাইরাল

কামাল লোহানীর পঞ্চম প্রয়াণ দিবসে উদীচীর স্মরণ সভা

রাসেলস ভাইপার মারলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

নারী নির্যাতন মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে

ডেনমার্কের বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের হতাশার ড্র

বাংলাদেশের সব অর্জন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

১০

আফগানদের হারিয়ে সুপার এইটে শুভ সূচনা ভারতের

১১

চুরি করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতা ধরা

১২

মজুদদারদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে : খাদ্যমন্ত্রী

১৩

ডিমলায় বুড়ি তিস্তা নদীর বাঁধে ভাঙন, পানিবন্দি ২ শতাধিক পরিবার

১৪

রাসেল ভাইপার নিয়ে ফেসবুকে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল, জনমনে আতঙ্ক

১৫

ঈদের ছুটিতে ছিলেন অফিসে, মিলল লাশ

১৬

ল্যাবএইডে দিনে ৭০টির বেশি এন্ডোসকপি, অস্বাভাবিক বলছেন বিশেষজ্ঞরা

১৭

প্রকাশ্যে মদ খেয়ে মাতলামি, জেলে গেলেন যুবক

১৮

ওসির কেরামতিতে মায়ের কোলে ‍ফিরল শিশু

১৯

পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর ১০ সাপ, বসবাস যেসব এলাকায়

২০
X