রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০
রাজশাহী ব্যুরো ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০২৩, ০৯:৫২ এএম
প্রিন্ট সংস্করণ

স্থানীয়দের সঙ্গে রাবি শিক্ষার্থী সংঘর্ষে বিনোদপুর রণক্ষেত্র

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্থানীয় লোকজন ও ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে গতকাল শনিবার রণক্ষেত্রে পরিণত হয় বিনোদপুর। সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হওয়া চার ঘণ্টাব্যাপী তুমুল সংঘর্ষে উভয়পক্ষে অন্তত দুই শতাধিক আহত হন। সংঘর্ষ চলাকালে বেশকিছু দোকানপাটে অগ্নিসংযোগ ও মোটরসাইকেল ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ সময় বিনোদপুর ফটকের পুলিশ বক্সটি পুড়িয়ে দেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মোতায়েন করা হয় সাত প্লাটুন বিজিবি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উভয়পক্ষকে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানান রাজশাহী সিটির মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন ও বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য গোলাম সাব্বির সাত্তার। তাদের তৎপরতায় রাত ১১টার দিকে কমে আসে সংঘর্ষের উত্তাপ।

এদিকে আজ রোববার ও আগামীকাল সোমবার সব ধরনের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য গোলাম সাব্বির সাত্তার। সংঘর্ষ শুরুর প্রায় তিন ঘণ্টা পর শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলতে এসে এ ঘোষণা দেন তিনি। ঘোষণার পর শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পড়েন উপাচার্য। বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাস বন্ধের প্রতিবাদ জানিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় হাতমাইকে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে উপাচার্য বলেন, তোমাদের প্রতি অনুরোধ, হলে ফিরে যাও। তোমাদের জন্য প্রশাসন সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করছে। রুমে যাও তোমরা। এ ঘটনায় প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছে।

বিনোদপুর বাজারে অবস্থান নেওয়া সিটি মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি খারাপ আঁচ করতে পেরে আরএমপি কমিশনারকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বলি। তাৎক্ষণিক সাত প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়।

রাত ১১টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক জাহিদুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, সংঘর্ষে দেড়শ জনের বেশি আহত ব্যক্তি চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে ৪৭ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, সংঘর্ষে ঘটনায় অন্তত দুই শতাধিক শিক্ষার্থীই আহত হয়েছেন। অনেকেই বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আলামিন আকাশ বগুড়া থেকে ‘মোহাম্মদ’ নামে একটি বাসে বিনোদপুর পৌঁছান। এর আগে আসনে বসাকে কেন্দ্র করে তার সঙ্গে বাসের চালক শরিফুল ও হেলপার রিপনের কথা-কাটাকাটি হয়। পরে বাসটি বিনোদপুর বিশ্ববিদ্যালয় গেটে পৌঁছালে রিপনের সঙ্গে ওই শিক্ষার্থীর আবারও বাগবিতণ্ডা হয়। এ সময় স্থানীয় এক দোকানদার এসে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে তর্কে জড়ালে ধাক্কাধাক্কির ঘটনা ঘটে। পরে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের আরও শিক্ষার্থী জড়ো হয়ে ওই দোকানদারের ওপর চড়াও হন। একপর্যায়ে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা একজোট হয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালান। শিক্ষার্থীরাও পাল্টা ধাওয়া করেন। শুরু হয় ব্যাপক সংঘর্ষ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সংঘর্ষ চলাকালে স্থানীয় লোকজন ও ব্যবসায়ীরা বিনোদপুর বাজারে অবস্থান নেন। শিক্ষার্থীরা অবস্থান নেন বিনোদপুর ফটকের ভেতরে ক্যাম্পাসে। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়। বিনোদপুর বাজারে অবস্থান নেন বিপুলসংখ্যক পুলিশ সদস্য। রাত ৮টার পরে সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তিনি সব পক্ষকেই শান্ত থাকার নির্দেশ দেন। এর পরও দীর্ঘ সময় ধরে চলতে থাকে এই সংঘর্ষ। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বিনোদপুর বাজারে গেলে তার মোটরসাইকেলও ভাঙচুর করা হয়। এতে সংঘর্ষ আরও বিস্তৃত হয়। বৃষ্টির মতো ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে উভয়পক্ষ।

বিনোদপুর বাজার সমিতির সভাপতি শহিদুল ইসলাম শহিদ বলেন, ব্যবসায়ীরা এক ব্যক্তিকে শিক্ষার্থীদের থেকে উদ্ধার করতে গেলে উল্টো শিক্ষার্থীরা তাদের ওপর হামলা চালায়। পরে পুলিশের সামনেই তারা বিনোদপুরের কয়েকটি দোকানে আগুন দেয় ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে।

এ পরিস্থিতিতে পুরো ক্যাম্পাস থমথমে হয়ে ওঠে। আবাসিক হলগুলো থেকে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বের হয়ে বিনোদপুর ফটকে অবস্থান নেন। বিনোদপুর বাজারের সব দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাতে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় বিজিবি মোতায়েন করা হয়। রাত সাড়ে ১০টায় রাজশাহীর বিজিবি-১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সাব্বির আহমেদ বলেন, ঘটনাস্থলে সাত প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

রাত ১২টার দিকে মতিহার থানার ওসি হাফিজুর রহমান কালবেলাকে বলেন, ‘পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে বিপুলসংখ্যক পুলিশ ও ৭ প্লাটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চলছে।’

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ঘুষ-দুর্নীতির আখড়া জাজিরার বড়কান্দি ইউনিয়ন ভূমি অফিস

মীন রাশিতে কাজে সফল হওয়ার দিন আজ

২৭ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

মঙ্গলবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

প্যারিসে ভাষা দিবস উপলক্ষে পঞ্চ কবির গানের সন্ধ্যা

বাবাকে কুপিয়ে জখম, ছেলে গ্রেপ্তার

আধিপত্য বিস্তারে দুই গ্রুপের ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ৩

পথ হারানো ৩১ দর্শনার্থীকে উদ্ধার করল পুলিশ

শিক্ষা সফরে মদপান, দুই শিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

১০

মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা!

১১

রাতের ঢাকায় নতুন মাদক

১২

বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

১৩

রংপুরকে উড়িয়ে ফাইনালে লিটনের কুমিল্লা

১৪

যুগান্তরের অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে

১৫

ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদ গ্রেপ্তার

১৬

যৌন হয়রানির অভিযোগে ভিকারুননিসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

১৭

করোনায় আক্রান্ত ডিবি প্রধান হারুন

১৮

‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণের প্রস্তাব বাতিল

১৯

বর্ণাঢ্য আয়োজনে চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নবীনবরণ

২০
X