কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২৩ মে ২০২৩, ০৫:০৫ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

ইয়েমেন ও মালিতে রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটনের এসি

ইয়েমেন ও মালিতে রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটনের এসি

আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন সর্বাধুনিক ফিচারের বিশ্বের অন্যতম বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এয়ার কন্ডিশনার তৈরি করছে গ্লোবাল ইলেকট্রনিক্স প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। স্থানীয় চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এসিসহ অন্যান্য পণ্য রপ্তানি করছে প্রতিষ্ঠানটি। এরই ধারাবাহিকতায় মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইয়েমেন এবং পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে রপ্তানি হচ্ছে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত ওয়ালটনের তৈরি এসি। এই দেশ দুটিতে নিজস্ব ব্র্যান্ড লোগোতে এসি বিপণন ও বিক্রয় করছে ওয়ালটন। বর্তমানে ওইএম (অরিজিনাল ইক্যুইপমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার) এর আওতায় এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে এয়ার কন্ডিশনার রপ্তানির পাশাপাশি গ্লোবাল মার্কেটে নিজস্ব ব্র্যান্ড বিজনেস সম্প্রসারণের ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে ওয়ালটন।

ওয়ালটন এসির চিফ বিজনেস অফিসার মো. তানভীর রহমান বলেন, অন্যতম শীর্ষ গ্লোবাল কনজ্যুমার ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড হওয়ার লক্ষ্য পূরণে ওয়ালটন বিশ্ববাজারে কৌশলগত রোডম্যাপ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। এই রোডম্যাপ বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে মধ্যপ্রাচ্য, ইউরোপ, আমেরিকা ও অস্ট্রেলিয়ার মতো উন্নত বিশ্বের বাজারগুলোতে ওইএম এর পাশাপাশি ওয়ালটন এসির নিজস্ব ব্র্যান্ড বিজনেস সম্প্রসারণে দেওয়া হয়েছে বিশেষ গুরুত্ব।

তিনি জানান, ২০১৯ সাল থেকে ইয়েমেনে এসি রপ্তানি করছেন তারা। শুরুতে ওইএম এর আওতায় ইয়েমেনের শীর্ষ স্থানীয় একটি ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ডকে তাদের দেওয়া ডিজাইন, মান ও অন্যান্য শর্তানুযায়ী এসি তৈরি করে দিয়েছে ওয়ালটন। পরবর্তীতে ওই প্রতিষ্ঠানটি ইয়েমেনে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের এসি, ফ্রিজ, টিভি, ওয়াশিং মেশিন, গ্যাস স্টোভ, ফ্যান ইত্যাদি পণ্য বিপণন ও বিক্রয় কার্যক্রম শুরু করে। এরইমধ্যে দেশটিতে ওয়ালটন এসির বেশ কয়েকটি বড় শিপমেন্ট হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে ইয়েমেনে পাঠানো ওয়ালটন এসির মধ্যে রয়েছে বিশ্বের অন্যতম সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্না সিরিজের এসিসহ রিভারাইন, ডায়মন্ড, ক্রিস্টালাইন ও ওশিনাস সিরিজের অত্যাধুনিক ফিচারসমৃদ্ধ এসি।

এর পাশাপাশি সম্প্রতি পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে ব্র্যান্ড বিজনেস শুরু করেছে ওয়ালটন। দেশটিতে ওয়ালটনের নিজস্ব ব্র্যান্ড লোগোতে এসি রপ্তানি ও বিক্রি হচ্ছে।

ওয়ালটন এসির হেড অব সেলস মুহাইমিনুল বারি জানান, বিশ্ব ক্রেতাদের হাতে পরিবেশবান্ধব ও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন অন্যতম বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এসি তুলে দিচ্ছে ওয়ালটন। ফলে প্রতিনিয়ত ওয়ালটন এসির নতুন নতুন রপ্তানি বাজার তৈরি হচ্ছে। তার মতে, সর্বাধুনিক প্রযুক্তি, উদ্ভাবনী ডিজাইন, আন্তর্জাতিক মান এবং মূল্য প্রতিযোগিতা সক্ষমতায় অন্যান্য গ্লোবাল ব্র্যান্ডের চেয়ে এগিয়ে থাকায় ওয়ালটন এসি দ্রুত বৈশ্বিক ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করে নিতে সক্ষম হচ্ছে।

সংশ্লিষ্টদের মতে, এয়ার কন্ডিশনার উচ্চ প্রযুক্তির একটি পণ্য। বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান ওয়ালটনের তৈরি এসি নিজস্ব ব্র্যান্ডের লোগোতে বিশ্ববাজারে রপ্তানি হওয়া অত্যন্ত মর্যাদাকর বিষয়। ফলে একদিকে যেমন রপ্তানি আয় বাড়ছে, তেমনই বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের কান্ট্রি ব্র্যান্ডিং হচ্ছে। উচ্চমানের ইলেকট্রনিক্স ও প্রযুক্তিপণ্য উৎপাদন এবং রপ্তানিতে বিশ্বজুড়ে বাংলাদেশের সুনামও বৃদ্ধি পাচ্ছে।

জানা গেছে, গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন হেডকোয়ার্টারে আন্তর্জাতিক মানের ম্যানুফ্যাকচারিং প্ল্যান্টে বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও ফিচারের টেকসই পরিবেশবান্ধব বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এসি উৎপাদন করা হচ্ছে। এসব এসিতে রয়েছে ফ্রস্ট ক্লিন, এয়ার প্লাজমা, থ্রি-ইন-ওয়ান কনভার্টার টেকনোলজি, স্মার্ট কন্ট্রোলসহ নানা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও ফিচার। এ ছাড়া আছে অফলাইন ভয়েস কন্ট্রোল এসি, ব্লুটুথ ও এয়ার প্লাজমা ফিচারের থ্রি ইন ওয়ান কনভার্টার প্রযুক্তির এসি। ওয়ালটনের ক্রিস্টালাইন সিরিজের ব্লুটুথ প্রযুক্তির এসি ইন্টারনেট ছাড়াই ব্লুটুথের মাধ্যমে স্মার্টফোন থেকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। ওয়ালটন এসিতে ব্যবহৃত এয়ার প্লাজমা প্রযুক্তি বাতাসে বিদ্যমান ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস ধ্বংস করে ঘরে স্বাস্থ্যকর ও আরামদায়ক পরিবেশ নিশ্চিত করে। থ্রি ইন ওয়ান কনভার্টার টেকনোলজির এসি গ্রাহকের রুমের আয়তন অনুযায়ী দেড় টন থেকে ১ টন এবং পৌনে এক টনে রূপান্তর সুবিধা রয়েছে।

অন্যদিকে দেড় টন থেকে ৫ টনের ক্যাসেট ও সিলিং টাইপ কমার্শিয়াল এসি উৎপাদন ও রপ্তানি করছে ওয়ালটন। যা শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, অফিস, কমিউনিটি সেন্টার, রেস্টুরেন্ট ইত্যাদি মাঝারি স্থাপনায় ব্যবহারের জন্য আদর্শ। আন্তর্জাতিক মানের টেস্টিং ল্যাব নাসদাত-ইউটিএস থেকে মান নিয়ন্ত্রণ সনদ পাওয়ার পরই ওয়ালটনের প্রতিটি এসি স্থানীয় ও বৈশ্বিক বাজারে ছাড়া হয়।

ওয়ালটন এসিতে এক বছরের রিপ্লেসমেন্টের পাশাপাশি ইনভার্টার এসির কম্প্রেসরে রয়েছে ১০ বছর পর্যন্ত ওয়ারেন্টি। আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় সারা দেশে ৭৯টি সার্ভিস সেন্টারের পাশাপাশি ৪০০ এরও বেশি সার্ভিস পার্টনারের মাধ্যমে দেশব্যাপী এসির গ্রাহকদের সেবা দিচ্ছে ওয়ালটন। তাদের দক্ষ ও অভিজ্ঞ প্রকৌশলী এবং টেকনিশিয়ানরা প্রতি ১০০ দিন পর পর এসি ক্রেতাদের ফ্রি সার্ভিস দিচ্ছেন।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের দুই প্রকৌশলীর আর্থিক লেনদেনের ভিডিও ভাইরাল

কামাল লোহানীর পঞ্চম প্রয়াণ দিবসে উদীচীর স্মরণ সভা

রাসেলস ভাইপার মারলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

নারী নির্যাতন মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে

ডেনমার্কের বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের হতাশার ড্র

বাংলাদেশের সব অর্জন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

আফগানদের হারিয়ে সুপার এইটে শুভ সূচনা ভারতের

চুরি করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতা ধরা

মজুদদারদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে : খাদ্যমন্ত্রী

১০

ডিমলায় বুড়ি তিস্তা নদীর বাঁধে ভাঙন, পানিবন্দি ২ শতাধিক পরিবার

১১

রাসেল ভাইপার নিয়ে ফেসবুকে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল, জনমনে আতঙ্ক

১২

ঈদের ছুটিতে ছিলেন অফিসে, মিলল লাশ

১৩

ল্যাবএইডে দিনে ৭০টির বেশি এন্ডোসকপি, অস্বাভাবিক বলছেন বিশেষজ্ঞরা

১৪

প্রকাশ্যে মদ খেয়ে মাতলামি, জেলে গেলেন যুবক

১৫

ওসির কেরামতিতে মায়ের কোলে ‍ফিরল শিশু

১৬

পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর ১০ সাপ, বসবাস যেসব এলাকায়

১৭

বন্যায় ঈদ আসেনি সিলেটের নিম্নাঞ্চলে

১৮

সূর্যকুমারের ফিফটিতে ভারতের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ

১৯

ছয় গুণ বাড়তে পারে মানিকখালী ব্রিজের টোল

২০
X