কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১৯ মে ২০২৩, ০৯:২৮ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

সাত মসজিদের সড়ক বিভাজকে লাগানো হলো বাহারি ফুলের গাছ

সাত মসজিদের সড়ক বিভাজকে লাগানো হলো বাহারি ফুলের গাছ

বাহারি ফুলের গাছে সজ্জিত করা হচ্ছে ধানমন্ডি এলাকার সাত মসজিদ সড়কের বিভাজক (মিডিয়ান)। রঙ্গন, কামিনী, বাগান বিলাস, চন্দ্রপ্রভা (টেকোমা) ও কাঞ্চন ফুলে সাত মসজিদ সড়কের বিভাজককে সাজিয়ে তুলতে গতকাল বৃহস্পতিবার রাত থেকে ফুলের গাছ লাগানো শুরু করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। এ জন্য খরচ ধরা হয়েছে প্রায় সাড়ে ১০ লাখ টাকা।

প্রতিটি গাছের মধ্যে ৪-৫ ফুট দূরত্ব রেখে সাত মসজিদ সড়কের মোট ১ দশমিক ৭ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের বিভাজকের মধ্যে ইতোমধ্যে ৮০০ মিটার অংশে প্রায় ৬৫০টি ফুলের গাছ লাগানো হয়েছে। এক হাজার ৭শ মিটার দৈর্ঘ্যের এ সডক বিভাজকে ফুলের গাছ লাগানো এবং সে জন্য প্রয়োজনীয় ভিটি বালু, মাটি, গোবর ও সার ক্রয়ে ১০ লাখ ৪০ হাজার টাকা ব্যয় হবে।

সড়ক বিভাজকে ফুলের গাছ লাগানো প্রসঙ্গে ‘ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন (মেগা)’ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. খায়রুল বাকের বলেন, আমরা সাত মসজিদ সড়কের বিভাজকে ফুলের গাছ লাগানো শুরু করেছি। পুরো বিভাজকে প্রায় ১ হাজার ৫০০ গাছ লাগানো হবে। আশা করি, আগামী দুদিনের মধ্যে সড়ক বিভাজককে ফুলের গাছে সজ্জিত করতে আমাদের কার্যক্রম সম্পন্ন হবে।

ধানমন্ডিতে সড়ক বিভাজকের গাছ কাটা প্রসঙ্গে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস গত মঙ্গলবার বলেন, ‘আমরা নাকি সাত মসজিদ সড়কে ৫৩৬টি গাছ কেটেছি। এটা পুরোটাই ভুল, মিথ্যা। অল্প কয়টি গাছ কাটা হয়েছে। আর মনে হয় ৩০টি গাছ বাকি আছে। সড়ক বিভাজকের মাঝে বড় গাছের প্রচলন আমরা আর করছি না। আমরা ছোট গাছ এবং ফুল গাছের প্রচলন রাখছি। উন্নত দেশে সড়ক বিভাজকের মাঝে কেউ বড় গাছ দেয় না। এটা ঝুঁকিপূর্ণ, অনেক গাছ পড়ে প্রাণহানি ঘটেছে। এটিও মাথায় রাখতে হবে। একটি গাছ নষ্ট কিংবা অপসারিত হলে তিনটি গাছ লাগানো হবে।’

দক্ষিণ সিটি করপোরেশন গত বছরের সেপ্টেম্বরে সড়কদ্বীপ, ফুটপাত, সড়ক বিভাজকের সৌন্দর্য বর্ধনের জন্য ৯ কোটি ৬২ লাখ টাকার একটি প্রকল্প হাতে নেয়, যার আওতায় সাত মসজিদ সড়কের সড়ক বিভাজকের উন্নয়ন কাজ করা হচ্ছে। মোট বাজেটের দুই কোটি টাকা ব্যয় হবে প্রায় দুই কিলোমিটার দীর্ঘ সাত মসজিদ রোডের উন্নয়নে। গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর শুরু হওয়া প্রকল্পটি চলতি বছরের ৩০ জুনের মধ্যে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। প্রকল্পের আওতায় সড়কের সৌন্দর্য বাড়াতে গাছ কেটে নতুন করে সড়ক বিভাজক তৈরি করছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি। এ জন্য গত জানুয়ারি মাসেও ওই সড়কে গাছ কেটেছিল সংস্থাটি। তখন এ নিয়ে নানা মহলের সমালোচনার মুখে গাছ কাটা বন্ধ রাখা হয়।

গত ৩০ এপ্রিল গভীর রাত থেকে দ্বিতীয় দফায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ সড়ক বিভাজকের গাছ আবার কাটতে শুরু করে। ওই দিন রাতেও গাছ কাটতে বাধা দেওয়া হয়। পরিবেশবাদীসহ বিভিন্ন নাগরিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এই গাছ কাটার বিরোধিতা করছে। তারা নানা কর্মসূচিও পালন করছে।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ঈদের ছুটিতে এবার শ্রীমঙ্গলে ভিন্ন চিত্র

চাঁদপুরে নদী ভাঙ্গনে দিশেহারা জালিয়ার চরবাসী

রেললাইনে পানি ওঠায় ট্রেনের গতি কমানোর নির্দেশ

ধর্ষণ মামলায় রায়হান গ্রেপ্তার

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইতালিকে হারিয়ে শেষ ষোলোতে স্পেন

নারায়ণগঞ্জে দুই প্রকৌশলীর ঘুষ নেওয়ার ভিডিও ভাইরাল

কামাল লোহানীর পঞ্চম প্রয়াণ দিবসে উদীচীর স্মরণ সভা

রাসেলস ভাইপার মারলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

নারী নির্যাতন মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে

১০

ডেনমার্কের বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের হতাশার ড্র

১১

বাংলাদেশের সব অর্জন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

১২

আফগানদের হারিয়ে সুপার এইটে শুভ সূচনা ভারতের

১৩

চুরি করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতা ধরা

১৪

মজুদদারদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে : খাদ্যমন্ত্রী

১৫

ডিমলায় বুড়ি তিস্তা নদীর বাঁধে ভাঙন, পানিবন্দি ২ শতাধিক পরিবার

১৬

রাসেল ভাইপার নিয়ে ফেসবুকে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল, জনমনে আতঙ্ক

১৭

ঈদের ছুটিতে ছিলেন অফিসে, মিলল লাশ

১৮

ল্যাবএইডে দিনে ৭০টির বেশি এন্ডোসকপি, অস্বাভাবিক বলছেন বিশেষজ্ঞরা

১৯

প্রকাশ্যে মদ খেয়ে মাতলামি, জেলে গেলেন যুবক

২০
X