সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০
কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ০৯ মার্চ ২০২৩, ০৩:৩৫ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

আসন ভাগাভাগি নিয়ে মার্কেটিং করা হচ্ছে : গয়েশ্বর

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে আসন ভাগাভাগি নিয়ে মার্কেটিং করা হচ্ছে উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, প্রতিবেশী বা বিদেশি যারা এই মার্কেটিং করছেন তাদের বলব, আপনারা শান্ত হোন। এ দেশের জনগণ কী চায় সেটা উপলব্ধি করুন, অন্যথায় জনগণ আপনাদের কাপড়-চোপড় খুলে ফেলবে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের উদ্যোগে এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী ও স্বেচ্ছাসেবকবিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপুসহ সব রাজবন্দির নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধন হয়।

সংগঠনের আহ্বায়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমানের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ও ঢাকা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চৌধুরীর পরিচালনায় এতে আরও বক্তব্য দেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপি নেতা আবদুস সালাম আজাদ, শিরীন সুলতানা, ডা. রফিকুল ইসলাম, মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, ফরিদা ইয়াসমিন প্রমুখ।

আওয়ামী লীগ সরকারের দুর্নীতি, গুম, খুন ও নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরে গয়েশ্বর রায় বলেন, এমন সময় আসবে পাড়া-মহল্লায় লেখা থাকবে, ‘এখানে আওয়ামী লীগ নিষিদ্ধ, এখানে কোনো আওয়ামী লীগ নেই।’ যেভাবে দেশ স্বাধীন হওয়ার পর লেখা হয়েছিল, ‘এখানে রাজাকার নেই।’

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ উদ্ধৃত করে গয়েশ্বর রায় বলেন, এদেশের মানুষ আজ মুক্তি চায়, বাঁচাতে চায়। এটা কিন্তু আপনার (প্রধানমন্ত্রী) আব্বা হুজুরের কথা। আমরা সেই আন্দোলন করছি। এদেশের মানুষ ভোটাধিকার চায়। এবারের সংগ্রাম গণতন্ত্রের সংগ্রাম, ১৮ কোটি মানুষের মুক্তির সংগ্রাম।

গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠায় দেশে জনবিস্ফোরণ ঘটাতে জনগণ প্রস্তুত উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনগণের আন্দোলন যখন বিস্ফোরন্মুখী, তখন কৃত্রিম বিস্ফোরণ ঘটিয়ে জনগণের দৃষ্টিভঙ্গি ভিন্ন দিকে নিয়ে, বিএনপিকে নির্যাতন করে আপনারা (সরকার) একটি নির্বাচনের স্বপ্ন দেখছেন। বিএনপি ও মানুষ মারার বিস্ফোরণ ঘটাবেন না।

আন্দোলনের দৃষ্টি গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার আদায়ের

সেলিমা রহমান বলেন, সরকারের সব অন্যায় অত্যাচারের বিরুদ্ধে এবং গণতন্ত্র ও ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার চলমান আন্দোলন যে কোনো সময় জনবিস্ফোরণ ঘটবে। এ কারণে সরকার তার পুরোনো খেলা শুরু করেছে।

সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, সরকারের অন্যায়-অত্যাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে বন্দি রাখা হয়েছে। আমাদের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ বহু নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এটা করে চলমান আন্দোলন বন্ধ করা

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ঘুষ-দুর্নীতির আখড়া জাজিরার বড়কান্দি ইউনিয়ন ভূমি অফিস

মীন রাশিতে কাজে সফল হওয়ার দিন আজ

২৭ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

মঙ্গলবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

প্যারিসে ভাষা দিবস উপলক্ষে পঞ্চ কবির গানের সন্ধ্যা

বাবাকে কুপিয়ে জখম, ছেলে গ্রেপ্তার

আধিপত্য বিস্তারে দুই গ্রুপের ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ৩

পথ হারানো ৩১ দর্শনার্থীকে উদ্ধার করল পুলিশ

শিক্ষা সফরে মদপান, দুই শিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

১০

মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা!

১১

রাতের ঢাকায় নতুন মাদক

১২

বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

১৩

রংপুরকে উড়িয়ে ফাইনালে লিটনের কুমিল্লা

১৪

যুগান্তরের অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে

১৫

ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদ গ্রেপ্তার

১৬

যৌন হয়রানির অভিযোগে ভিকারুননিসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

১৭

করোনায় আক্রান্ত ডিবি প্রধান হারুন

১৮

‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণের প্রস্তাব বাতিল

১৯

বর্ণাঢ্য আয়োজনে চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নবীনবরণ

২০
X