রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০
কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০২৩, ১০:০৩ এএম
অনলাইন সংস্করণ

দেশের জনগণকে দুই ভাগে বিভক্ত করেছে সরকার : এনডিপি

ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এনডিপি) চেয়ারম্যান কে এম আবু তাহের ও মহাসচিব আবদুল্লাহ আল হারুন (সোহেল) বলেছেন, সরকার দেশের জনগণকে দুই ভাগে বিভক্ত করে দিয়েছে।

গতকাল শনিবার এক বিবৃতিতে তারা এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, দেশ এখন এক মহাসংকটময় পরিস্থিতি পার করছে। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের সীমাহীন দুর্নীতি, প্রবাসীদের কষ্টার্জিত বৈদেশিক মুদ্রা পাচার, সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে সাধারণ জনগণবিদ্বেষী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা, পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীকে সাধারণ জনতার প্রতিপক্ষ হিসেবে গড়ে তোলা, জনগণের কল্যাণকর কার্য না করে কিছু স্বার্থান্বেষী আওয়ামী লীগ ও প্রশাসনের লোকের আনন্দ-ফুর্তিতে ব্যস্ত থাকা, ৩০ লাখ মানুষের রক্ত ও লাখ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে শুধু একজন ও এক দলের সাফল্য হিসেবে জাহির করতে গিয়ে আজ দেশের জনগণকে দুই ভাগে বিভক্ত করে দিয়েছে। যার এক ভাগে দেশের ৫-৬ শতাংশ শোষক শ্রেণির মানুষ আর অন্য ভাগে দেশের ৯৪-৯৫ শতাংশ শোষিত সাধারণ জনগণ।

তারা বলেন, দেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ এখন জনগণ ও দেশবিরোধী দলে পরিণত হয়ে মানুষের গণতান্ত্রিক ও সাংবিধানিক সব মৌলিক অধিকার হরণ করে নিয়েছে। জমিদারি প্রথার মতো এখন এই দেশ যেন একটি পরিবারের! তাদের আছে কিছু তোষামোদি পাইক-পেয়াদা আর আমরা সবাই তাদের প্রজা। দেশের ১৮ কোটি মানুষের কষ্টার্জিত অর্থ থেকে কর নিয়ে সরকারি লোকজন বিদেশে সম্পদ গড়ছে আর দেশে দিবস উদযাপন করছে।

এনডিপির নেতারা বলেন, সরকার যে সাধারণ মানুষের প্রতি দায়িত্ববোধ অনুভব করে না, গত বছর সিলেটে বন্যার সময় বন্যার্তদের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকার সারা দেশে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উদযাপন করেছে—এটাই তার প্রমাণ। সেই উদযাপন আতশবাজি আর আলোকসজ্জা করে এক দিন পরেই লোডশেডিং শুরু করলেন।

তারা আরও বলেন, কিছুদিন থেকে ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় বিস্ফোরণে মানুষ মারা যাচ্ছে; কিন্তু আজ পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ সঠিক কারণ জানাতে পারছে না। ঢাকা শহর মশার নগরীতে পরিণত হয়ে শত শত মানুষ ডেঙ্গু জ্বরে মারা গেল; কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বা সিটি করপোরেশন কোনো বিশেষ ব্যবস্থা নেয়নি।

নেতারা বলেন, সরকার ঘরে ঘরে চাকরির প্রলোভন দিয়ে ক্ষমতায় এসে বাংলাদেশকে বেকারত্বের দেশে পরিণত করেছে। জনস্বার্থ দেখার সরকারি বিভিন্ন সংস্থা থাকা সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রী আজ ব্যবসায়ী সম্মেলনে জনদুর্ভোগের কথা বিবেচনা করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম স্বাভাবিক পর্যায়ে আনার উপায় খুঁজে বের করতে ব্যবসায়ী নেতাদের আহ্বান জানান; যা সরকারের দেউলিয়াত্বের প্রমাণ। এমন কথা বলার আগে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত ছিল। কারণ এতে প্রমাণ হয়, দেশের প্রশাসন সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে। জনগণের স্বার্থে কিছু করার যোগ্যতা আর এই সরকারের নেই এবং সিন্ডিকেট ভাঙার শক্তিও বর্তমান সরকারের নেই।

এনডিপি দেশ ও জনগণের বৃহত্তর স্বার্থে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকারের এখনই পদত্যাগ দাবি করছে। এনডিপি দাবি করছে, বর্তমান সরকারের সংবিধানে প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনবেন, যাতে নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীন একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। অন্যথায় অতিদ্রুততম সময়ের মধ্যে গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে এই ফ্যাসিবাদী, স্বৈরাচারী, গণবিরোধী সরকারকে পদত্যাগে বাধ্য করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করা হবে এবং গত ১৪ বছরের সরকারের সব অবৈধ কার্যকলাপের বিচার হবে। এনডিপি দেশের সব জনগণকে একটি গণঅভ্যুত্থানের জন্য প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানায়।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

ঘুষ-দুর্নীতির আখড়া জাজিরার বড়কান্দি ইউনিয়ন ভূমি অফিস

মীন রাশিতে কাজে সফল হওয়ার দিন আজ

২৭ ফেব্রুয়ারি : নামাজের সময়সূচি

মঙ্গলবার রাজধানীর যেসব এলাকায় যাবেন না

কী ঘটেছিল ইতিহাসের এই দিনে

প্যারিসে ভাষা দিবস উপলক্ষে পঞ্চ কবির গানের সন্ধ্যা

বাবাকে কুপিয়ে জখম, ছেলে গ্রেপ্তার

আধিপত্য বিস্তারে দুই গ্রুপের ককটেল বিস্ফোরণ, আহত ৩

পথ হারানো ৩১ দর্শনার্থীকে উদ্ধার করল পুলিশ

শিক্ষা সফরে মদপান, দুই শিক্ষক সাময়িক বরখাস্ত

১০

মিয়ানমারে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিদ্রোহীরা!

১১

রাতের ঢাকায় নতুন মাদক

১২

বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন এর কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

১৩

রংপুরকে উড়িয়ে ফাইনালে লিটনের কুমিল্লা

১৪

যুগান্তরের অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে

১৫

ভিকারুননিসার শিক্ষক মুরাদ গ্রেপ্তার

১৬

যৌন হয়রানির অভিযোগে ভিকারুননিসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

১৭

করোনায় আক্রান্ত ডিবি প্রধান হারুন

১৮

‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ নামকরণের প্রস্তাব বাতিল

১৯

বর্ণাঢ্য আয়োজনে চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের নবীনবরণ

২০
X