কালবেলা প্রতিবেদক
প্রকাশ : ২৬ মে ২০২৩, ০৯:১৮ পিএম
অনলাইন সংস্করণ

আরও দেশ নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে : নুর

আরও দেশ নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে : নুর

বাংলাদেশের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ভিসা নীতি বিরোধী দলের চলমান নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিকে আরও শক্তিশালী করেছে বলে দাবি করেছেন যুগপৎ আন্দোলনের শরিক গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

তিনি বলেন, ‘শুধু যুক্তরাষ্ট্র নয়, আরও অনেক দেশ সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য এ সরকারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে পারে। এমনকি জাতিসংঘে আমাদের শান্তিরক্ষী মিশন বন্ধ হয়ে যেতে পারে। কারণ নিজ দেশে শান্তি-স্থিতিশীলতা না থাকলে কীভাবে তারা অন্য দেশে শান্তি রক্ষা করবে।’

আজ শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর পুরানা পল্টনে গণঅধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে পদযাত্রাপূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন নুর। দুর্নীতি, দুঃশাসন ও দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে দলের ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ শাখার যৌথ উদ্যোগে এই পদযাত্রা ও সমাবেশ হয়। পরে পদযাত্রাটি পল্টন এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

নুরুল হক নুর বলেন, আমরা যুক্তরাষ্ট্রসহ বাংলাদেশের সব বন্ধুপ্রতীম রাষ্ট্রকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে পাশে চাই। সরকারকে বলব, বিরোধী দলের চলমান আন্দোলনে সন্ত্রাস, সহিংসতা, হামলা-মামলা, হয়রানি বন্ধ করে অনতিবিলম্বে সংকট উত্তরণে আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতায় আসুন।

তিনি বলেন, এই সরকার গত ১৪ বছরে বিরোধীদের ওপর দলীয় সন্ত্রাসী ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী লেলিয়ে দমন-পীড়ন করে যেভাবে দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করেছে তাতে স্পষ্ট যে, এদের অধীনে কোনোভাবেই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে সংসদে দাঁড়িয়ে কোটা বাতিলের কথা বললেও পরবর্তীতে সেই কথা রাখেননি। নির্বাচনের আগে গণভবনে জাতীয় নেতাদের ডেকে সুষ্ঠু নির্বাচনের কথা বললেও জাতির সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। কাজেই নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকার ব্যতীত এই সরকারের অধীনে কোনোভাবেই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়।

গণঅধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খান বলেন, ২০১৪ ও ২০১৮ সালের মতো নির্বাচন করতে আসলে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের ওপর মার্কিন ভিসা নিষেধাজ্ঞা আসবে। ইতোমধ্যে তারা তা আঁচ করতে পেরে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের রক্তাক্ত করছে। জনগণকে দলীয় সরকারের অধীনে শুধু ভোট বর্জনই নয়, ভুয়া নির্বাচন ঠেকাতে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

গণঅধিকার পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব আহমাদ ইসমাঈল বন্ধন ও উত্তরের সদস্য সচিব জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় পদযাত্রাপূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন দক্ষিণের আহ্বায়ক ড. আব্দুল মালেক ফরাজি, উত্তরের আহ্বায়ক কর্নেল (অব.) মিয়া মশিউজ্জামান, কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক হাসান আল মামুন, ফারুক হাসান, বিপ্লব কুমার পোদ্দার, আবু হানিফ, শহিদুল ইসলাম ফাহিম, সাদ্দাম হোসেন, সহকারী আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট নুরে এরশাদ সিদ্দিকী, যুগ্ম সদস্যসচিব তারেক রহমান, ফাতেমা তাসনিম, বাংলাদেশ শ্রমিক অধিকার পরিষদের সভাপতি আব্দুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা সম্পদ, ছাত্র অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আদিব প্রমুখ।

কালবেলা অনলাইন এর সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের দুই প্রকৌশলীর আর্থিক লেনদেনের ভিডিও ভাইরাল

কামাল লোহানীর পঞ্চম প্রয়াণ দিবসে উদীচীর স্মরণ সভা

রাসেলস ভাইপার মারলেই ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

নারী নির্যাতন মামলায় চেয়ারম্যান কারাগারে

ডেনমার্কের বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের হতাশার ড্র

বাংলাদেশের সব অর্জন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

আফগানদের হারিয়ে সুপার এইটে শুভ সূচনা ভারতের

চুরি করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতা ধরা

মজুদদারদের বিরুদ্ধে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের বিধান রেখে নতুন আইন হচ্ছে : খাদ্যমন্ত্রী

১০

ডিমলায় বুড়ি তিস্তা নদীর বাঁধে ভাঙন, পানিবন্দি ২ শতাধিক পরিবার

১১

রাসেল ভাইপার নিয়ে ফেসবুকে ভুয়া পোস্ট ভাইরাল, জনমনে আতঙ্ক

১২

ঈদের ছুটিতে ছিলেন অফিসে, মিলল লাশ

১৩

ল্যাবএইডে দিনে ৭০টির বেশি এন্ডোসকপি, অস্বাভাবিক বলছেন বিশেষজ্ঞরা

১৪

প্রকাশ্যে মদ খেয়ে মাতলামি, জেলে গেলেন যুবক

১৫

ওসির কেরামতিতে মায়ের কোলে ‍ফিরল শিশু

১৬

পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর ১০ সাপ, বসবাস যেসব এলাকায়

১৭

বন্যায় ঈদ আসেনি সিলেটের নিম্নাঞ্চলে

১৮

সূর্যকুমারের ফিফটিতে ভারতের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ

১৯

ছয় গুণ বাড়তে পারে মানিকখালী ব্রিজের টোল

২০
X